দাবি: ১৬ মার্চ বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যকার ম্যাচে একের পর এক নাটকীয় মোড় নিচ্ছিল। এ পর্যায়ে চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে বাংলাদেশ দলের ড্রেসিং রুমের কাঁচ ভাঙ্গার খবর। এ নিয়ে গুজব ছড়ায় সোশ্যাল মিডিয়ায়; এক পক্ষ বলে, বাংলাদেশের জয়ে শ্রীলংকার সমর্থকরা বাংলাদেশ দলের ড্রেসিং রুমে ভাংচুর করেছে। আরেক পক্ষ দাবি করে, বাংলাদেশ পক্ষ ভাংচুর চালিয়েছে।

গুজবের নমুনা:

শুক্রবার শ্রীলঙ্কা-বাংলাদেশ ম্যাচের উত্তেজনার উত্তাপ শুধু মাঠেই সীমাবদ্ধ থাকেনি। তা আরো অনেক দূর গড়িয়েছে সামজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। বাংলাদেশী সমার্থকরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ক্ষোভ প্রকাশ করে আঙ্গুল তুললো সিলঙ্কান সমার্থকদের দিকে।



আসল ঘটনা:

জানা যায়, এ নিয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে। সিসিটিভির ফুটেজ দেখেই জানানো হবে কারণ। অবশেষে জানা গেলো অতি উল্লাসেই ভেঙ্গে গেছে ড্রেসিং রুমের কাঁচ। এমনটাই জানালেন ম্যাচ-রেফারি ক্রিস ব্রড। ভিডিও ফুটেজ দেখে তদন্তে এমনটাই বেরিয়ে এসেছে।

দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস তাদের প্রতিবেদনে প্রকাশ করে, বাংলাদেশ দলের আপ্যায়নে নিযুক্ত থাকা কর্মীদের সাক্ষ্য নিয়েছেন ব্রড। জনিয়েছেন, জয়ের পর আনন্দ করতে গিয়েই কোনো এক সময় কাঁচ ভেঙ্গে যায়। এটা ইচ্ছাকৃত বা পরিকল্পিত কোনো ঘটনা না। নিছক একটা দুর্ঘটনা।

 

ক্রিকইনফোর প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা গিয়েছে, বাংলাদেশের ড্রেসিং রুমে যারা ছিলো তাদের মধ্যে থেকেই কেউ কাঁচের দরজাটি ভেঙ্গেছিলো। সিসি ক্যামেরায় দেখা গেছে, কিছু বাংলাদেশি ক্রিকেটার ড্রেসিং রুমের দিকে এগিয়ে যাচ্ছিলো। এর কিছু পরেই সিঁড়িতে ভাঙ্গা গ্লাস পড়তে দেখা যায়। হয়তো সেই মুহূর্তেই দরজাটি ভাঙ্গা হয়েছিলো। ম্যাচ রেফারি ক্রিস ব্রড ইতিমধ্যে ভিডিও ফুটেজ দেখে ক্যাটারিংয়ের কিছু লোকের সাথে কথা বলছেন।

 

  • Read in English

Leave a Reply

fact-watch