সম্প্রতি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে মেসির একটি সাক্ষাৎকার। স্প্যানিশ ভাষায় করা এই সাক্ষাৎকারের নিচে থাকা সাবটাইটেলে দেখা যায়, রোনালদোর বেশ প্রশংসা করছেন মেসি। অনুসন্ধানের পর দেখা গিয়েছে, ভিডিওর সাবটাইটেলের সাথে কথার কোনো মিল নেই।

ফেসবুকে আর্জেন্টাইন তারকা লিওনেল মেসির একটি সাক্ষাৎকার হয়তো আপনাদের অনেকেরই চোখে পড়েছে। আর্জেন্টিনার জাতীয় ভাষা স্প্যানিশে করা এই সাক্ষাৎকারের নিচে ইংরেজি অনুবাদও ছিলো, যেখানে রোনালদোকে বিশ্বের সেরা ফুটবলার হিসেবে বলছেন মেসি। পাশাপাশি এটাও বলেছেন যে, “আমি মনে করি না বিশ্বে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর চেয়ে ভালো কোনো খেলোয়াড় আছেন। আমি তার একজন ভক্ত। গত কয়েক বছরে তার কাছ থেকে আমি অনেক শিখেছি।”

‘Real Madrid Football Fans India’ নামের ফেসবুক পেইজে বানোয়াট এই ভিডিও দেখা হয়েছে ৪.২ মিলিয়ন বার, ৬৭৩০১ বার শেয়ার করা হয়েছে, লাইক করেছেন ৬৯০০০ জন।

রোনালদোকে নিয়ে মেসির এই বক্তব্য অনেক ফুটবল অনুরাগীর হৃদয় ছুঁয়ে গেলেও ফ্যাক্ট-ওয়াচের অনুসন্ধানে বের হয়েছে যে ভিডিওর বক্তব্যের সাথে মিল নেই সাবটাইটেলের। তবে স্প্যানিশ সাবটাইটেলের জটিল মারপ্যাঁচে যাবার আগে ভিডিওটি সম্পর্কে বলে নেওয়া ভালো। ভুয়া ইংরেজি সাবটাইটেলসহ সাক্ষাৎকারের ভিডিওটি সর্বপ্রথম আপলোড করা হয় চলতি বছরে মার্চের ৮ তারিখে “রেফালোনা” নামক একটি ইউটিউব চ্যানেলে। ভিডিওটি একইসাথে আপলোড হয় রেফালোনার ফেসবুক পাতাতেও। মূলত সেখান থেকেই এটি সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ে।


ইউটিউব:


ফেসবুক:

Lionel Messi Interview – Refalona TV

Lionel Messi: "Ronaldo is the Greatest Of All Time"

Posted by Refalona on Thursday, 8 March 2018


ভিডিওর রেজল্যুশন এবং কোয়ালিটির ভেতরকার তারতম্য থেকে ধারণা করা যায় যে অন্য কোনো ভিডিওকে কেটে বানানো হয়েছে এটিকে। ফ্যাক্ট-ওয়াচের অনুসন্ধানে বের হয়ে আসে ভিডিওর মূল উৎস। গতবছর নভেম্বরের ২৫ তারিখে সাক্ষাৎকারটিকে প্রথমবার প্রকাশ করে মার্কা নামক একটি স্প্যানিশ ট্যাবলয়েড পত্রিকা। তাদের ওয়েবসাইটে থাকা ভিডিওটিকে জুম করে, ঘুরিয়ে ব্যবহার করেছে “রেফালোনা” নামক ইউটিউব চ্যানেলটি।

“মার্কা” এবং “রেফালোনা”র আপলোড করা ভিডিও দুটি যে একই ভিডিও সেটি বোঝা যায় ভিডিওর ভেতরকার কিছু ব্যাপার লক্ষ করলে। দুটি ভিডিওতে মেসির পোশাক, চুল-দাঁড়ির কাট এমনকি কপালের উপর পরে থাকা চুলও একইরকমের। পুরো ভিডিওর ব্যাকগ্রাউন্ডে কিছুটা অসামঞ্জস্যতা লক্ষ করা যায়। মার্কার ভিডিওটিতে মেসি মুখ করে আছেন বাম দিকে। তার পেছনে একটি গোল্ডেন বুট রাখা। অন্যদিকে রেফালোনার ভিডিওতে তিনি ডানদিকে মুখ করে আছেন।

ক্যামেরা থেকে মেসির দূরত্ব ভাবলে এটি স্পষ্ট যে মার্কার ভিডিওটিকে বড় করে এবং তারপর ফ্লিপ করে বানানো হয়েছে রেফালোনার ভিডিওটি। তাই ফ্রেমের বাইরে চলে গিয়েছে গোল্ডেন বুটটি। দুটি ভিডিওতেই মেসির পোশাকের বাম পাশে থাকা লোগো এবং সাক্ষাৎকার গ্রহণে ব্যবহৃত মাইক্রোফোনের অবস্থানও একই জায়গায়। পুরো ভিডিওজুড়ে বিভিন্ন সময় ক্যামেরার ফ্ল্যাশ ব্যবহার করে ছবি তোলা হয়েছে।

স্প্যানিশ খেলাধুলা বিষয়ক পত্রিকা “মার্কা” তাদের ওয়েব পাতায় স্প্যানিশ ভাষার সাক্ষাৎকারটি প্রকাশের পাশাপাশি পুরো সাক্ষাৎকারটিকে ইংরেজিতে দিয়ে দিয়েছে। পুরো সাক্ষাৎকার জুড়ে “রেফালোনা”র আপলোড করা ভিডিওর সাবটাইটেল বা এর কাছাকাছি কোনোকিছুও পাওয়া যায় নি। পুরো সাক্ষাৎকারের একেবারে শেষদিকে দুইবার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর ব্যাপারে প্রশ্ন আসে। একটি প্রশ্নে প্রশ্নকর্তা মেসিকে জিজ্ঞেস করেন যে তিনি রোনালদোকে ব্যালোন ডি’অর জেতায় প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে মনে করেন নাকি। প্রশ্নের জবাবে মেসি বলেন, “গত কয়েক বছরে মাত্র দুইজন থাকলেও বর্তমানে অনেক ভালো ভালো খেলোয়াড় আছেন যারা ব্যালোন ডি’অর জিততে পারেন। এখন নেইমার, লুইস সুয়ারেজের মতন খেলোয়াড়রাও ব্যালোন ডি’অরের জন্যে লড়তে পারেন।”

আরেক প্রশ্নে প্রশ্নকর্তা মেসিকে জিজ্ঞেস করে, “ক্রিশ্চিয়ানো বেশ আগে বলেছিলেন যে আপনারা দুইজন ভালো বন্ধু হতে পারেন। আপনার কি মনে হয় সেটি সম্ভব?” জবাবে মেসি বলেন, “এটি সম্ভব নাকি সেটি আমি জানি না। দুইজন মানুষ যখন একসাথে সময় কাটায়, একজন আরেকজনকে চিনতে পারে তখনই বন্ধুত্বটা হয়। আমাদের দেখাই হয় বিভিন্ন এওয়ার্ড অনুষ্ঠানে। তখনই শুধু কথাবার্তা হয়। সবকিছু ভালোই চলছে, কিন্তু আমাদের আসলে সেভাবে করে দেখা হয় না।”
পুরো সাক্ষাৎকারে মাত্র দুইবারই ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর নাম আসে। এর বাইরে তাকে নিয়ে কোনোপ্রকার আলোচনা হয়নি। সাক্ষাৎকারের ভিডিওটি সত্যি হলেও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর গুণগান গাওয়া সাবটাইটেলটি সম্পূর্ণ মিথ্যা।

 

  • Read in English

Total
6
Shares

Leave a Reply

fact-watch