গুঞ্জন আছে, প্যান আমেরিকান ফ্ল্যাইট - ৯১৪ নামে একটি বিমান ১৯৫৫ সালে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক থেকে নিখোঁজের ৩৭ বছর পর ১৯৯২ সালে কোন ক্ষয়ক্ষতির ছাড়াই মিয়ামিতে অবতরণ করে। যার ব্যাখ্যা হিসেবে দাঁড় করানো হয় টাইম ট্রাভেলকে।

এই পৃথিবীতে বিমান হারিয়ে যাওয়ার খবর নতুন কিছু নয়। তবে যদি বলা হয় একটি বিমান হারিয়ে যাওয়ার ৩৭ বছর পর আবার ফিরে এসেছে, বিশ্বাস-অবিশ্বাসের ধূম্রজাল তখন ঘুরপাক খেতে শুরু করবে আমাদের মস্তিষ্কে। যদি অবিশ্বাস বিশ্বাসে রুপ নেয় তবে সৃষ্টি হবে বিস্ময়ের।

গুঞ্জন আছে, প্যান আমেরিকান ফ্ল্যাইট – ৯১৪ নামে একটি বিমান ১৯৫৫ সালে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক থেকে নিখোঁজের ৩৭ বছর পর ১৯৯২ সালে কোন ক্ষয়ক্ষতির ছাড়াই মিয়ামিতে অবতরণ করে। যার ব্যাখ্যা হিসেবে দাঁড় করানো হয় টাইম ট্রাভেলকে।

এই গুঞ্জনের শুরু হয় মূলত ‘ওয়ার্ল্ড উইকলি নিউজ‘ নামক একটি ফিকশনাল জার্নালে প্রকাশিত খবর থেকে। তারাই প্রথম এ সম্পর্কে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে। তবে প্রায় একই খবর তারা প্রকাশ করেছিলো ১৯৮৫ সালে। যেখানে তারা একটি বিমান হারিয়ে যাওয়ার ৩০ বছর পর ফিরে এসেছে বলে দাবি করে।

১৯৯২ সালের পর ১৯৯৩ এবং ১৯৯৯ সালে তাদের পত্রিকায় লেখাটি আবারও প্রকাশ করা হয়। তবে সেখানে প্রত্যক্ষদর্শী হিসেবে দেখানো হয় দু’জন আলাদা ব্যক্তিকে। যা খবরের সত্যতা নিয়ে সন্দেহ সৃষ্টির জন্য যথেষ্ট। মজার ব্যাপার হচ্ছে, ১৯৮৫ সালে প্রকাশিত সেই খবরের একই সংখ্যায় আরো একটি খবর ছিলো, যেটি মূলত একটি ইঁদুর নিজ হাতে তার পায়ে গুলি করেছে এমন একটি গল্পের উপর ভিত্তি করে করা। তাই বলা যায়, ‘ওয়ার্ল্ড উইকলি নিউজ’ বাস্তবতার চেয়ে কল্পনা শক্তিকেই বেশী প্রাধান্য দেয়।
এই খবরের সত্য মিথ্যার যাচাইকে আরো সহজ করে দেবে ইন্টারনেটে থাকা ১৮৫৬ সালে ঘটে যাওয়া সেই কিউবা ট্রাজেডি থেকে আজ অব্দি হারিয়ে যাওয়া বিমানের তালিকা। সেই তালিকায় ১৯৫৪ এবং ১৯৫৬ সালের কথা উল্লেখ থাকলেও ১৯৫৫ সালে বিমান হারানোর কোন তথ্য নেই। প্যান আমেরিকান ওয়ার্ল্ড এয়ারওয়েজেরও প্যান আমেরিকান ফ্ল্যাইট-৯১৪ নামে কোন বিমান আজ অব্দি ছিলো না

উপরোক্ত তথ্যের ভিত্তিতে বলা যায়, হারিয়ে যাওয়ার ৩৭ বছর পর বিমান ফিরে আসার ঘটনাটি সম্পূর্ণ মিথ্যা।

  • Read in English

Leave a Reply

fact-watch