ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন কি পরিচ্ছন্নতায় বিশ্ব রেকর্ড গড়েছে?

ইতোমধ্যে এই ঘটনাকে নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে দ্যা ডেইলি স্টার, ঢাকা ট্রিবিউন সহ দেশের শীর্ষস্থানীয় বিভিন্ন পত্রিকা। তবে তাদের করা কোনো প্রতিবেদনে নেই “পরিচ্ছন্নতায় বিশ্ব রেকর্ড” গড়ার কথা। বরং লেখা, “সর্ববৃহৎ পরিচ্ছন্নতার ক্যাম্পেইন”-এর কারণে গিনেস বুকে নাম উঠেছে ঢাকা সিটি করপোরেশনের।

ডেইলি স্টারের প্রতিবেদন অনুযায়ী ১৫ হাজারের অধিক মানুষ এই পরিচ্ছন্নতা অভিযানে অংশগ্রহণ করলেও গিনেস বুক ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের ওয়েবসাইটে থাকা তথ্য অনুযায়ী, অংশগ্রহণকারীর সংখ্যা ৭হাজার ২১জন। জনপ্রিয় দৈনিক প্রথম আলো প্রতিবেদনে গিনেস বুকের ওয়েবসাইটে থাকা তথ্য ব্যবহার করেছে। অন্যদিকে অংশগ্রহণকারীদের সংখ্যা নিয়ে পুরোপুরি ভিন্ন তথ্য প্রকাশ করেছে যূগান্তর! তাদের প্রতিবেদন অনুযায়ী, “কর্মসূচিতে প্রায় ৩০ হাজারের বেশি মানুষ অংশগ্রহণ করলেও রেজিস্ট্রেশন অনুযায়ী কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছিলেন ১৫ হাজার ৩১৩ জন।” যদিও এই লেখার ঠিক উপরে থাকা গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের স্ক্রিনশটে স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে অংশগ্রহণকারীর সংখ্যা ৭০২১ জন।

গাজী ট্যাংক, মেলোনেডস, কন্টেন্ট ম্যাটারস লিমিটেড, মাস্টহেড পিআর, এক্সপার্ট প্রোভাইডারস, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ, গাজী টিভি, ডেটল এবং ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন যৌথভাবে নতুন এই রেকর্ড তৈরি করেছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের ওয়েবসাইটে। রেকর্ডটিকে নিয়ে তৈরি করা পাতায় উল্লেখ করা রয়েছে যে সবচেয়ে বেশিসংখ্যক মানুষ একটি ভেন্যুতে পরিচ্ছন্নতা অভিযানে নেমে এই রেকর্ডটি করেছে।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন এই পরিচ্ছন্নতা অভিযানের মাধ্যমে জনসচেতনতা তৈরি করেছে। তবে অভিযানের পর অভিনন্দন জানিয়ে তৈরি করা ব্যানারটি জনগণকে একটি ভুল ধারণা দিচ্ছে। কারণ রেকর্ডটি মোটেও “পরিচ্ছন্নতায় বিশ্ব রেকর্ড” নয়, এটি সবচেয়ে বেশিসংখ্যক মানুষ একটি ভেন্যুতে একসাথে পরিচ্ছন্নতা অভিযানে অংশগ্রহণ করার বিশ্ব রেকর্ড।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *