সাবেক মেয়র খোকন কি দল থেকে বহিষ্কৃত হতে পারেন?

গত ১১ই জানুয়ারি নতুন টিভি নিউজ নামের একটি অনলাইন সংবাদমাধ্যমের শিরোনামে লেখা হয়েছে ‘মঙ্গলবার দল থেকে বহিষ্কার হতে পারে সাঈদ খোকন’। গত রোববার ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) সাবেক মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে দল থেকে বহিষ্কারের দাবি করেছে আওয়ামীপন্থী আইনজীবীরা কিন্তু তার বহিষ্কৃত হবার সম্ভাবনা নিয়ে নির্ভরযোগ্য কোন তথ্য পাওয়া যায়নি। অন্যদিকে শিরোনামের সাথে প্রতিবেদনটির বিস্তারিত অংশের কোন মিল খুঁজে পাওয়া যায়নি। দৃশ্যত, প্রতিবাদ সমাবেশে উত্থাপিত দাবিকে কেন্দ্র করে ইচ্ছাকৃতভাবেই ভুয়া শিরোনামে খবরটি ছড়ান হচ্ছে।

নতুন টিভি নিউজ এ অনলাইন সংবাদমাধ্যমের শিরোনামে লেখা হয়েছে ‘মঙ্গলবার দল থেকে বহিষ্কার হতে পারে সাঈদ খোকন’। কিন্তু বিস্তারিত অংশে কোথাও সাবেক মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকনের দল থেকে বহিষ্কৃত হবার বা বহিষ্কারের সম্ভাবনা নিয়ে কোন কথা বলা হয়নি।

 

ঘটনা অনুসন্ধান করে জানা যায় এর আগে শনিবার (৯ জানুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর জাতীয় ঈদগাহ ময়দান ও প্লেস ক্লাব সংলগ্ন কদম ফোয়ারার সামনে আয়োজিত মানববন্ধনে উপস্থিত হয়ে শেখ ফজলে নূর তাপস ডিএসসিসির মেয়র পদে থাকার যোগ্য নন বলে দাবি করেন সংস্থাটির সাবেক মেয়র ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মোহাম্মদ সাঈদ খোকন। পরবর্তীতে (রোববার) একটি প্রতিবাদ সমাবেশে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সব পর্যায়ের পদ থেকে খোকনের পদত্যাগ দাবি করেছেন সুপ্রিম কোর্টের আওয়ামীপন্থী আইনজীবীরা। তথ্যসূত্র জাগো নিউজ ২৪)।

 

৯ তারিখের মানববন্ধনে সাঈদ খোকনের এমন বক্তব্যের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টের আওয়ামীপন্থী আইনজীবীরা প্রতিবাদ সমাবেশটি করেন এবং সোমবার সকালে মানহানির অভিযোগে একই আদালতে এ দুটি মামলার আবেদন করেন কাজী আনিসুর রহমান ও অপর সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী সারওয়ার আলম। যদিও এ মামলার আদেশের দিন পিছিয়ে ১৯শে জানুয়ারি রাখা হয়েছে। (তথ্যসূত্র বাংলা নিউজ ২৪)।

অর্থাৎ, গত ৯, ১০ এবং ১১ জানুয়ারির ঘটনাগুলোকে আমলে নিয়ে নতুন টিভি নিউজ পত্রিকাটি তাদের শিরোনামে ‘মঙ্গলবার’ কথাটি উল্লেখ করে সাবেক মেয়র খোকনের দল থেকে বহিস্কার হবার সম্ভাবনার দাবিটি করে। যদিও বিস্তারিত অংশে এর কোন ব্যাখ্যা বা সম্পৃক্ততা হাজির করেনি।

বিস্তারিত অংশের স্ক্রিনশট

 

তথ্যসূত্র

নতুন টিভি নিউজের প্রতিবেদন

জাগো নিউজ ২৪ এর প্রতিবেদন

বাংলা নিউজ ২৪ এর প্রতিবেদন

 

আপনি কি এমন কোন খবর দেখেছেন যার সত্যতা যাচাই করা প্রয়োজন?
কোন বিভ্রান্তিকর ছবি/ভিডিও পেয়েছেন?
নেটে ছড়িয়ে পড়া কোন গুজব কি চোখে পড়েছে?

এসবের সত্যতা যাচাই করতে আমাদেরকে জানান।
আমাদেরকে ইমেইল করুনঃ contact@fact-watch.org
অথবা ফেইসবুকে মেসেজ দিনঃ fb.com/search.ulab

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *