ম্যাচের শুরুতে সূরা ফাতিহা গেয়েছিল আফগানিস্তান ক্রিকেট দল?

Published on: July 3, 2024

যা দাবি করা হচ্ছে : ২০২৪ সালের টি-টুয়েন্টি ক্রিকেট বিশ্বকাপের একটি ম্যাচের শুরুতে আফগানিস্তানের ক্রিকেটাররা প্রথামাফিক জাতীয় সঙ্গীত না গেয়ে ‘সূরা ফাতিহা’ পাঠ করেছেন।

অনুসন্ধানে যা পাওয়া যাচ্ছে : উক্ত ম্যাচে আফগানিস্তানের ক্রিকেটাররা রীতি মেনেই তাদের জাতীয় সঙ্গীত গেয়েছেন। বরং সেই ভিডিও এডিট করে সুরা ফাতিহার শব্দ যোগ করে ফেসবুকে ভুল দাবিতে উক্ত এডিটেড ভিডিও প্রচার করা হচ্ছে।

ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া কয়েকটি ভিডিও দেখুন এখানে , এখানে, এখানে, এখানে , এখানে, এখানে, এখানে, এখানে , এখানে, এখানে, এখানে, এখানে ।

ফ্যাক্টওয়াচের অনুসন্ধান

অতি সম্প্রতি শেষ হওয়া টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপ ক্রিকেটের সেমিফাইনালে আফগানিস্তান এবং দক্ষিণ আফ্রিকা মুখোমুখি হয়েছিল গত ২৬শে জুন তারিখে। সাধারণত যেকোনো আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় খেলার শুরুতে দুই দলের জাতীয় সঙ্গীত বাজানো হয়। এই খেলার শুরুতেও রীতিমাফিক দুই দলের জাতীয় সঙ্গীত বাজানো হয়েছিল।

Vivant নামক ইউটিউব চ্যানেলে সেদিন খেলার শুরুতে জাতীয় সঙ্গীতের অংশটুকু দেখা যাচ্ছে, যে ভিডিও ক্লিপটা নেওয়া হয়েছে স্টার স্পোর্টস টিভি চ্যানেল এর সরাসরি সম্প্রচার থেকে । এই ভিডিও ক্লিপের সাথে ফেসবুকে ‘সূরা ফাতেহা পাঠ’ এর দাবিতে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওর উল্লেখযোগ্য মিল দেখা যাচ্ছে। কয়েকটি অংশের মিল দেখুন নিচে।

সূরা ফাতিহা পাঠ করার কথিত ভিডিও জাতীয় সঙ্গীত গাওয়ার মূল ভিডিও

অর্থাৎ, vivant এর ভিডিওটি সেদিনের খেলার শুরুর সময়কার ভিডিও, এটা নিশ্চিত হওয়া গেল।

একইদিনে, Mr Muffin নামক ইউটিউব চ্যানেলে একজন সাধারণ দর্শকের ক্যামেরায় গ্যালারি থেকে জাতীয় সঙ্গীত গাওয়ার সময়কার আংশিক ভিডিও একটি ভিন্ন এ্যাঙ্গেল থেকে পাওয়া যাচ্ছে।

এসকল ভিডিওর সাথে যুক্ত অডিও খেয়াল করলে দেখা যাচ্ছে যে এখানে কোরান শরীফের সূরা ফাতেহা তেলাওয়াত করা হচ্ছে না।

আফগান ওয়েব নামক ওয়েবসাইট থেকে আফগানিস্তানের জাতীয় সঙ্গীত পাওয়া যাচ্ছে। ২০০৬ সাল থেকে এটাই আফগানিস্তানের জাতীয় সঙ্গীত বলে এখানে দাবি করা হয়েছে। এই গান এবং সুরের সাথে ২৬শে জুন ম্যাচের অডিও পর্যালোচনা করে দেখা গেল, সেদিন আফগান খেলোয়াড়রা এই জাতীয় সঙ্গীতই গেয়েছিল। এমনকি, খেলোয়াড় ও দর্শকের মুখ নাড়ানোর সাথেও গানটি মিলে যাচ্ছে।

পশতু ভাষায় আব্দুল বারি জাহানির লেখা এবং বাবরাক ওয়াসা এর সুর করা গানটির রোমান হরফে অনুলিপিটা নিম্নরুপ-

Daa watan afghanistan do daa ezzat de har afghan di

Kor de soli kor de tori har bachi ye qahraman di

Daa watan di tolo kor di de balocho, de uzbako

De pashtoon aw hazarwoo de turkmano de tajeko

Worsara arab, gojar di pamirian, noristanian

Barahawi di, qizilbash di ham aimaq, ham pashaiyean

Daa hiwad ba til zaligi laka limar pa eshna aasman

Pa sina ki de asia laka zera wi jawidan

Noom de haq mo di rahbar wayoo Allah o Akbar, wayoo Allah o Akbar

এই বিশ্বকাপে আফগানিস্তানের পুরনো ম্যাচের ভিডিও পর্যালোচনা করেও দেখা গেল, তারা ‘দা ওয়াতান আফগানিস্তান’ শীর্ষক এই জাতীয় সঙ্গীতই গেয়েছিল পুরো টুর্নামেন্টে। উদাহরণস্বরূপ, গ্রুপ পর্যায়ে আফগানিস্তান বনাম স্কটল্যান্ড ম্যাচের ভিডিও দেখতে পাবেন এখানে। এছাড়া, টিভিতে সরাসরি সেমিফাইনাল ম্যাচ দেখা একাধিক দর্শক নিশ্চিত করেছেন, ২৬শে জুন তারিখে তারা ম্যাচের শুরুতে সূরা ফাতিহা শুনতে পাননি ।

অর্থাৎ এটা নিশ্চিত যে মূল ভিডিওর অডিও অংশটি পরিবর্তন করে সেখানে ‘সূরা ফাতিহা তেলাওয়াত’ এর অডিও যুক্ত করা হয়েছে। এবং পরিশেষে এই এডিটেড ভিডিওটা ভুল দাবিযুক্ত ক্যাপশন দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপলোড করা হয়েছে।

সার্বিক বিবেচনায়, আফগানিস্তানের ম্যাচে সূরা ফাতিহা গাওয়ার দাবি যুক্ত এসব ভিডিওকে ফ্যাক্টওয়াচ ‘বিকৃত’ সাব্যস্ত করছে।

এই নিবন্ধটি ফেসবুকের ফ্যাক্ট-চেকিং প্রোগ্রামের নীতি মেনে লেখা হয়েছে।।
এর উপর ভিত্তি করে ফেসবুক যে ধরণের বিধিনিষেধ আরোপ করতে পারে, সে সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন এখানে
এছাড়া এই নিবন্ধ সম্পর্কে আপনার মূল্যায়ন, সম্পাদনা কিংবা আরোপিত বিধিনিষেধ তুলে নেয়ার জন্য আবেদন করতে এই লিঙ্কের সাহায্য নিন।

কোনো তথ্যের সত্যতা যাচাই করতে আমাদেরকেঃ
ইমেইল করুনঃ contact@factwatch.org
অথবা ফেইসবুকে মেসেজ দিনঃ facebook.com/fwatch.bangladesh