সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনারের লাশ উদ্ধারের দাবিতে ভিন্ন ব্যক্তির ছবি প্রচার 

Published on: May 26, 2024

দাবি করা হয়েছে সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনারের মৃতদেহ (লাশ) উদ্ধার হয়েছে। এমন দাবি করে কাফনপরা এক মৃতব্যক্তির ছবিও প্রচার করা হয়েছে। দাবি অনুযায়ী এই মৃতব্যক্তি সদ্য প্রয়াত সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনার (আইন শৃঙ্খলাবাহিনীর তথ্য অনুযায়ী মৃত)। তবে ফ্যাক্টওয়াচের অনুসন্ধানে দেখা গেছে, ছবিটি ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনারের লাশের ছবি নয়। মূলত ঝিনাইদহের ভিন্ন এক ব্যক্তির লাশের ছবি উক্ত দাবিতে প্রচার করা হয়েছে।  তাছাড়া ভারতীয় পুলিশ জানিয়েছে সংসদ সদস্য আনার খুন হয়েছেন এ বিষয়ে তারা নিশ্চিত। তবে এখন পর্যন্ত সংসদ সদস্যের মরদেহ বা লাশ কিংবা কোনোপ্রকার দেহাবশেষ উদ্ধার করতে পারেনি। 

 

ফেসবুকে প্রচারিত কিছু ছবি দেখুন এখানে , এখানে , এখানে এবং এখানে

আলোচিত মৃতদেহের বিষয়ে বিস্তারিত জানতে ছবিটি নিয়ে রিভার্স ইমেজ সার্চ করা হয়। সেখান থেকে Zaved Iqbal Zordern নামের একটি ফেসবুক পেজের সন্ধান পাওয়া যায়। ২১ মে ২০২৪ তারিখে যেখান থেকে একটি পোস্ট করা হয়। পোস্টটিতে লেখা আছে, “২১/০৫/২০২৪ আমার বড় বোনের একমাত্র ছেলে আসিফ পারভেজ আনুমানিক ৯/৩০ ঘটিকার সময় স্টক [স্ট্রোক] জনিত কারণে ইন্তেকাল করেছে, “ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন, মৃত্যু কালে তার বয়স হয়েছিল ৩৩ বছর, ঝিনাইদহ হামদহ খন্ধকার পাড়া”। লক্ষণীয় যে, এই পোস্টের সাথে যেই ছবি জাভেদ ইকবাল প্রচার করেছেন ঠিকই একই ছবি পোস্ট করে দাবি করা হয়েছে এটি আনোয়ারুল আজিম আনারের মৃতদেহের বা লাশের ছবি।”

উল্লেখ্য, সংসদ সদস্য আনারের লাশের দাবিতে ছবিটি ফেসবুকে ভাইরাল হলে ২৩ মে ২০২৪ তারিখে উক্ত ছবির বিষয়ে জাভেদ ইকবাল ফেসবুকে আর একটি স্ট্যাটাস বা পোস্ট দেন। পুনরায় তিনি ফেসবুকে লিখেছেন, “ফরহাদ রেজা নামে আর একটা আইডি থেকে ঠিক একই কাজ করা হয়েছে আমার ভাগিনার লাশের ছবি নিয়ে ও একটা স্ট্যাটাস দিয়েছে কালিগঞ্জ-৪ আসনের এমপি আনারুল সাহেবের লাশের ছবি হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে আমি এর বিরুদ্ধেও আইনগত ব্যবস্থা নিতে চাচ্ছি আপনাদের সহযোগিতা কামনা করছি”। 

অর্থাৎ ভাইরাল ছবিটি যে জাভেদ ইকবাল জর্ডানের বোনের ছেলের তাঁর স্ট্যাটাস থেকে এ বিষয়টি পরিষ্কার। 

বলাবাহুল্য, ২২ মে ২০৪ তারিখে প্রধানসারির গণমাধ্যম এই মর্মে সংবাদ প্রচার করে যে ভারতে এমপি আনোয়ারুল আজিম আনারের লাশ উদ্ধার হয়েছে। যদিও ভারতীয় পুলিশ জানিয়েছে সংসদ সদস্য আনার খুন হয়েছেন এ বিষয়ে তারা নিশ্চিত, তবে এখন পর্যন্ত সংসদ সদস্যের মরদেহ বা লাশ কিংবা কোনোপ্রকার দেহাবশেষ উদ্ধার করতে পারেনি তাঁরা। এরপর থেকে গণমাধ্যম থেকে লাশ উদ্ধার হয়েছে এমন দাবি করা হয়নি আর। বরং খণ্ডবিখণ্ড লাশ উদ্ধারের প্রচেষ্টা চলছে সেই দৃশ্যের লাইভ দেখানো হচ্ছে। সময় টিভি থেকে প্রকাশিত এমন একটি ভিডিও প্রতিবেদন দেখুন এখানে। 

সুতরাং, এখন পর্যন্ত সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনারের লাশের কোনো চিহ্ন পায়নি ভারতীয় পুলিশ। যে কারণে তাঁর উদ্ধার বা লাশের ছবি এসব দাবিগুলোকে “মিথ্যা” সাব্যস্ত করছে ফ্যাক্টওয়াচ।

এই নিবন্ধটি ফেসবুকের ফ্যাক্ট-চেকিং প্রোগ্রামের নীতি মেনে লেখা হয়েছে।।
এর উপর ভিত্তি করে ফেসবুক যে ধরণের বিধিনিষেধ আরোপ করতে পারে, সে সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন এখানে
এছাড়া এই নিবন্ধ সম্পর্কে আপনার মূল্যায়ন, সম্পাদনা কিংবা আরোপিত বিধিনিষেধ তুলে নেয়ার জন্য আবেদন করতে এই লিঙ্কের সাহায্য নিন।

কোনো তথ্যের সত্যতা যাচাই করতে আমাদেরকেঃ
ইমেইল করুনঃ contact@factwatch.org
অথবা ফেইসবুকে মেসেজ দিনঃ facebook.com/fwatch.bangladesh