ঈদ যাত্রার পুরনো ছবিকে পোষাকশ্রমিকদের ঢাকায় ফেরার ছবি হিসেবে প্রচার

Published on: [August 3,2021]

সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া একটি ছবিতে দেখা যাচ্ছে বেশ কিছু মানুষ গাদাগাদি করে একটা ছাদখোলা ট্রাকে চড়ে কোথাও যাচ্ছেন। দাবি করা হচ্ছে, এই ছবিটা গত ৩১শে জুলাই গার্মেন্টস কর্মীদের তাড়াহুড়া করে ঢাকায় ফেরার ছবি। তবে ফ্যাক্টওয়াচের অনুসন্ধানে দেখা গিয়েছে, এটা ২০১৮ সালের ঈদের পূর্বে ঢাকা থেকে গ্রামে যাওয়ার একটি ছবি।

বিভ্রান্তির উৎস

৩০শে জুলাই রাতে ঘোষণা করা হয়েছিল, ১লা আগস্ট থেকে রপ্তানিমুখী শিল্প কারখানা চালু হবে। এই খবরে ৩১শে জুলাই দিনভর দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে পোষাক শ্রমিকদের ঢাকা অভিমুখে যাত্রা করতে দেখা যায়। বিভিন্ন যানবাহনে কিংবা ফেরিতে উপচে পড়া যাত্রীদের ভিড়ের বেশ কিছু ছবি সারাদিন অনলাইনে দেখা যায়।

এই ডামাডোলে আমাদের আলোচ্য ছবিটি ৩১শে জুলাই সন্ধ্যা থেকে ভাইরাল হতে থাকে। এই ছবির সাথে অনেকে ক্যাপশন হিসেবে ‘দাসের দল নগরে ফিরছে’ কিংবা এই জাতীয় কিছু কথা জুড়ে দেন। ৩১শে জুলাই সন্ধ্যা ৭ টার পর থেকে এমন ক্যাপশনযুক্ত ছবি বেশ কিছু ফেসবুক পেজ এবং গ্রুপ থেকে  ছড়াতে দেখা যায়। এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে , এখানে , এখানে, এখানে, এখানে  ।



অনেকে আবার একসাথে একাধিক ছবি আপলোড করেন, যার মধ্যে ৩১শে জুলাই এর আসল ছবি এবং ২০১৮ সালের এই পুরনো ছবি একসাথেই রয়েছে। এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে , এখানে , এখানে

এসব পোস্টে পোষাকশ্রমিকদের ‘দাস’ বলার পক্ষে বিপক্ষে বিভিন্ন যুক্তি নিয়ে আলোচনা-সমালোচনাও দেখা যায় কমেন্ট বক্সে।

ফ্যাক্ট ওয়াচের অনুসন্ধান

লক্ষণীয়, ছবিতে কারো মুখে বা থুতনিতে কোনো মাস্ক নেই । এ থেকে অনুমান করা যেতে পারে, এটা করোনা প্রাদুর্ভাবের আগের কোনো ছবি।

ট্রাকটিতে বিভিন্ন বয়সী নারী,পুরুষ,শিশু দেখা যাচ্ছে। অনেক ভারি ব্যাগ কিংবা লাগেজ দেখা যাচ্ছে এদের সাথে। সাধারণত ঈদের সময় ঢাকা থেকে গ্রামমুখী যাত্রার সময় এমন ধরনের প্রস্তুতি দেখা যায়।

মূল ছবিটি ইনস্টাগ্রামে পাওয়া গেল । ২০১৮  সালের ১৬ই জুন তারিখে ফটোগ্রাফার আব্দুল মোমিন এটি আপলোড করেন।

এ বিষয়ে তিনি তার ফেসবুক একাউন্টে একটি স্ট্যাটাসের মাধ্যমে জানাচ্ছেন, সবার অবগতির জন্য জানাচ্ছি, করোনা মহামারী আসার অনেক পূর্বে ২০১৮ সালের জুন মাসে আমি ছবিটি নিজ জেলা বগুড়ায় তুলেছিলাম। ছবির ঘটনাটি দুঃখজনক হলেও খুবই সাধারণ, প্রত্যেক ঈদে কর্মজীবী মানুষ গ্রামে ছুটি কাটাতে এভাবে ঢাকা হতে ট্রাকে করে বাড়ি ফেরে…

এছাড়া , ডেইলি স্টারকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, আমার এই পুরনো ছবিটি দেখছি অনেক মানুষ ফেসবুকে তাদের প্রোফাইল, পেজ  এবং বিভিন্ন গ্রুপে শেয়ার করছেন। তারা ছবিটিতে সাম্প্রতিক সময়ের ছবি হিসেবে উল্লেখ করছেন। কিন্তু, এ তথ্য সঠিক নয়। ২০১৮ সালের ১৫ জুন ঈদুল ফিতরের আগের দিন বগুড়া টিএমএসএস মেডিকেল কলেজ এবং হাসপাতালের ফুট ওভার ব্রিজের ওপর থেকে ছবিটি আমি তুলেছিলাম। তখন এসব মানুষ ঈদ করতে ট্রাকে করে ঢাকা থেকে উত্তরবঙ্গের জেলাগুলোতে ফিরছিলেন।’

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে ঈদ-উল-ফিতর অনুষ্ঠিত হয়েছিল ১৬ই জুন তারিখে।

ফ্যাক্ট ওয়াচের প্রতিবেদক আব্দুল মোমিনের সাথে যোগাযোগ করেন। তিনি নিশ্চিত করেছেন , ছবিটি তিনি তুলেছিলেন ২০১৮ সালে। উপর থেকে তোলা হলেও, এটা কোনো ড্রোন শট নয়। বরং রাস্তার ওভারব্রিজের ওপর দাড়িয়ে আইএসও ২০০, শাটার স্পিড ১/৮০১ সেকেন্ড, এ্যাপার্চার ৪.৮ এই কম্পোজিশনে Nikon D7200 ক্যামেরা দিয়ে তিনি এই মুহুর্তটি বন্দী করেছিলেন।

সিদ্ধান্ত

সকল প্রমাণ সাপেক্ষে নিশ্চিত হওয়া যায় যে, আলোচ্য ছবিটি ৩১শে জুলাই এর নয়, বরং ৩ বছর পূর্বে তোলা ছবি। ঈদ যাত্রা, টঙ্গীর ইজতেমা কিংবা বিভিন্ন সময়েই বিভিন্ন যানবাহনে এভাবে যাত্রীদেরকে গাদাগাদি করে চলতে দেখা যায়।  বর্তমান সময়ে স্পর্শকাতর ক্যাপশন যোগ করে পুরনো এই ছবি শেয়ার করাকে মিথ্যা বলে ফ্যাক্টওয়াচ মনে করে।

আপনি কি এমন কোন খবর দেখেছেন যার সত্যতা যাচাই করা প্রয়োজন?
কোন বিভ্রান্তিকর ছবি/ভিডিও পেয়েছেন?
নেটে ছড়িয়ে পড়া কোন গুজব কি চোখে পড়েছে?

এসবের সত্যতা যাচাই করতে আমাদেরকে জানান।
আমাদেরকে ইমেইল করুনঃ contact@factwatch.org
অথবা ফেইসবুকে মেসেজ দিনঃ facebook.com/fwatch.bangladesh

Leave a Reply