জামাল ভূঁইয়ার বকেয়া বেতন পরিশোধ করবেন মেসি –  ভুয়া ফটোকার্ড 

Published on: May 23, 2024

ফুটবলার জামাল ভূঁইয়ার বকেয়া বেতন পরিশোধ করবেন লিওনেল মেসি – এমন সংবাদসম্বলিত ডিবিসি নিউজের আদলে বানানো একটি ফটোকার্ড ঘুরে বেড়াচ্ছে ফেসবুকে। ফ্যাক্টওয়াচের অনুসন্ধানে দেখা যাচ্ছে, ডিবিসি নিউজের পক্ষ থেকে এমন কোনো সংবাদ বা ফটোকার্ড প্রকাশ করা হয় নি। জাতীয় ও আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম থেকেও নিশ্চিত হওয়া যায় যে সংবাদটি ভুয়া। তাই বানোয়াট এই ফটোকার্ডকে ফ্যাক্টওয়াচ “মিথ্যা” আখ্যা দিচ্ছে।

 

গুজবের উৎস:

মে মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে ফেসবুকে ফটোকার্ডটি শেয়ার হতে থাকে। কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে, এখানে, এখানে

 

ফ্যাক্টওয়াচ অনুসন্ধান:

বাংলাদেশের জাতীয় ফুটবল টিমের অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া ২০২৩ সালের আগস্ট মাসে আর্জেন্টিনার তৃতীয় বিভাগের ক্লাব সোল দে মায়োতে যোগ দেন। সাত মাস ধরে বেতন না পাওয়ায় চার ম্যাচ খেলে তিনি ক্লাব ছেড়ে দেশে চলে আসেন এবং ক্লাবটির বিরুদ্ধে ফিফার কাছে অভিযোগ জানান। গত ৮ মে ফিফা ট্রাইবুন্যাল থেকে ক্লাব সোল দে মায়োকে জামালের প্রায় ২ কোটি টাকা বকেয়া বেতন পরিশোধের রায় দেওয়া হয়।

কিন্তু ডিবিসি নিউজের অফিশিয়াল ফেসবুক পেইজ এবং ওয়েবসাইটে উক্ত ফটোকার্ড বা প্রাসঙ্গিক কোনো সংবাদ খুঁজে পাওয়া যায় নি। ডিবিসি নিউজ ছাড়াও জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে মেসি কর্তৃক জামাল ভূঁইয়ার বকেয়া বেতন পরিশোধের ঘোষণা বা রায়ের কোনো সংবাদ খুঁজে পাওয়া যায় না। উল্লেখ্য, লিওনেল মেসি ইন্টার মায়ামি ক্লাবে খেলেন এবং কখনো সোল দে মায়ো ক্লাবে খেলেন নি। এই ক্লাবের সাথে তার কোনো সম্পৃক্ততাও নেই। 

স্পষ্টতই ফটোকার্ড এবং এতে প্রকাশিত সংবাদ উভয়ই ভিত্তিহীন এবং বানোয়াট। সঙ্গত কারণে ফ্যাক্টওয়াচ পোস্টকে মিথ্যা সাব্যস্ত করছে। 

এই নিবন্ধটি ফেসবুকের ফ্যাক্ট-চেকিং প্রোগ্রামের নীতি মেনে লেখা হয়েছে।।
এর উপর ভিত্তি করে ফেসবুক যে ধরণের বিধিনিষেধ আরোপ করতে পারে, সে সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন এখানে
এছাড়া এই নিবন্ধ সম্পর্কে আপনার মূল্যায়ন, সম্পাদনা কিংবা আরোপিত বিধিনিষেধ তুলে নেয়ার জন্য আবেদন করতে এই লিঙ্কের সাহায্য নিন।

কোনো তথ্যের সত্যতা যাচাই করতে আমাদেরকেঃ
ইমেইল করুনঃ contact@factwatch.org
অথবা ফেইসবুকে মেসেজ দিনঃ facebook.com/fwatch.bangladesh