মেট্রোর ভেতরে নাচের ঘটনাটি বাংলাদেশের নয় 

Published on: May 23, 2024

যা ছড়িয়েছে: মেট্রোর ভেতরেই যুবতীর ‘অশ্লীল’ নাচ, সেই ভিডিও ভাইরাল। 

যে ধারণা দেয়া হচ্ছে: ঘটনাটি ঘটেছে বাংলাদেশে

ফ্যাক্টওয়াচের সিদ্ধান্ত: দাবিটি বিভ্রান্তিকর। কারণ, মেট্রোর ভেতরে নাচের ঘটনাটি বাংলাদেশের নয়। মূল ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লির মেট্রোতে। কিন্তু ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া এসব সংবাদের শিরোনামে নির্দিষ্ট কোনো দেশ বা স্থানের উল্লেখ নেই। যে কারণে সংবাদটি দেখে প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে এটি হয়তো বাংলাদেশের ঘটনা। যার ফলে সাধারণ ব্যবহারকারীদের অনেকে বিষয়টি বাংলাদেশের ঘটনা ভেবেছেন। অনেকেই আবার ঘটনাটির জন্য বাংলাদেশের প্রশাসনের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন।

 

ফেসবুকে আলোচিত সংবাদটি বাংলাদেশের মূলধারার গণমাধ্যমে “মেট্রোতে ‘অশ্লীল’ নাচ যুবতীর, ভিডিও ভাইরাল” বা “মেট্রোর ভেতরেই ‘অশ্লীল’ নাচ যুবতীর, ভিডিও ভাইরাল” ইত্যাদি শিরোনামে প্রকাশিত হয়েছে। সংবাদটির সাথে একটি ফটোকার্ড ব্যবহার করা হয়েছে। ফটোকার্ডটিতে একজন নারীর নৃত্যরত অবস্থার স্থির ছবি ব্যবহার করা হয়েছে। উক্ত সংবাদটির বিস্তারিত অংশে দেখা যায়, ঘটনাটি ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লির মেট্রো রেলে ঘটেছে। লক্ষনীয় যে, প্রতিবেদনের শিরোনামে যখন স্থানের নাম দিল্লি বা দেশের নাম ভারত উল্লেখ করা হয়েছে, তখন তা নিয়ে কোনো বিভ্রান্তি হয় নি। অথচ “মেট্রোতে ‘অশ্লীল’ নাচ যুবতীর” এ জাতীয় শিরোনাম বিভ্রান্তি ছড়িয়েছে। তাছাড়া এটি বাংলাদেশের কোনো ঘটনা ভেবে অনেকেই সংবাদটির নিচে বিভিন্ন মন্তব্য করেছেন। ভেতরের সংবাদ পড়ে যখন দেখেছেন এটি ভারতের দিল্লির ঘটনা তখন বাংলাদেশের সাংবাদিকতার মান এবং এমন ক্লিকবেট শিরোনাম নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। 

উল্লেখ্য, ভারতে ঘটে যাওয়া ঘটনাটি নিয়ে ভারতীয় গণমাধ্যমে যে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে সেখানে সংবাদের শিরোনামেই ঘটনাস্থলের কথা উল্লেখ আছে। অথচ বাংলাদেশের কিছু গণমাধ্যমের শিরোনামে স্থানে বা দেশের নাম উল্লেখ নেই। যার ফলে স্বভাবতই জনসাধারণ বিভ্রান্ত হয়েছেন। বিভ্রান্তির নমুনা নিচে দেখানো হলো: 

প্রসঙ্গত যে, ভারতের এই সংবাদটি বাংলাদেশের গণমাধ্যমে কিভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে তা বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, দৈনিক ইনকিলাব এবং দৈনিক করতোয়া এ বিষয়ে যেই প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে সেখানে শিরোনাম অংশে পরিষ্কারভাবে স্থান বা দেশের নাম উল্লেখ করেছে। যদিও কিছু গণমাধ্যমের শিরোনাম থেকে বোঝার উপায় নেই এটি কোন স্থানের ঘটনা। ফেসবুক ভাইরাল এমন কিছু লিংক বাছাই করা হয়েছে। যা দেখতে পাবেন এখানে, এখানে এখানে, এখানে এবং এখানে। 

উল্লেখ্য, ভারতীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী এই ঘটনাটির মূল বিষয়বস্তু হলো দিল্লি  মেট্রোরেলের ভেতরে, ভোজপুরি গানে তালে বেলি ডান্স দিয়েছেন এক নারী। সেই ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে দ্রুত ভাইরাল হয়েছে। যা নিয়ে ভারতের গণমাধ্যমে সংবাদ হয়েছে। 

সুতরাং, সবকিছু বিবেচনা করে ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া সংবাদটিকে ফ্যাক্টওয়াচ “বিভ্রান্তিকর” হিসেবে সাব্যস্ত করেছে। 

এই নিবন্ধটি ফেসবুকের ফ্যাক্ট-চেকিং প্রোগ্রামের নীতি মেনে লেখা হয়েছে।।
এর উপর ভিত্তি করে ফেসবুক যে ধরণের বিধিনিষেধ আরোপ করতে পারে, সে সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন এখানে
এছাড়া এই নিবন্ধ সম্পর্কে আপনার মূল্যায়ন, সম্পাদনা কিংবা আরোপিত বিধিনিষেধ তুলে নেয়ার জন্য আবেদন করতে এই লিঙ্কের সাহায্য নিন।

কোনো তথ্যের সত্যতা যাচাই করতে আমাদেরকেঃ
ইমেইল করুনঃ contact@factwatch.org
অথবা ফেইসবুকে মেসেজ দিনঃ facebook.com/fwatch.bangladesh