ছবিগুলো ইরানের প্রেসিডেন্ট রাইসিকে বহনকারী হেলিকপ্টারের ধ্বংসাবশেষের নয়

Published on: May 21, 2024

গত ১৯ মে ২০২৪ এ ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি (Ebrahim Raisi) কে বহনকারী একটি হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হওয়ার ঘটনার একদিন পর প্রেসিডেন্ট রাইসি এবং তাঁর সকল সহযাত্রীদের নিহত হওয়ার তথ্য নিশ্চিত করেছে দেশটির সরকারি সংবাদমাধ্যম আইআরএনএ (IRNA)। ফেসবুকে রাইসির মৃত্যুর খবর প্রচার করতে গিয়ে অনেকেই দুর্ঘটনাস্থলের বেশকিছু ছবি শেয়ার করেছেন, যা দেখে মনে হচ্ছে ছবিগুলো রাইসিকে বহনকারী হেলিকপ্টারের ধ্বংসাবশেষ। তবে কয়েকটি ব্যতিক্রম বাদে সবগুলো ছবির উৎস অনুসন্ধান করে দেখা গেছে, সেগুলো প্রায় চার বছর আগে ইরানের মাজান্দারান প্রদেশে দুর্ঘটনায় কবলিত অন্য একটি বিমানের ধ্বংসাবশেষের ছবি। ইন্টারনেট থেকে প্রাপ্ত বিভিন্ন তথ্যপ্রমাণের ভিত্তিতে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। তাই ফ্যাক্টওয়াচ সামাজিক মাধ্যমে শেয়ারকৃত পুরানো দুর্ঘটনার ছবি সংবলিত পোস্টগুলোকে “বিভ্রান্তিকর” বলে সাব্যস্ত করছে। 

 

অনুসন্ধান:

ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসির মৃত্যুর খবর প্রচার করতে সামাজিক মাধ্যমে দুর্ঘটনায় কবলিত হেলিকপ্টারের ধ্বংসাবশেষের যে ছবিগুলো ব্যবহার করা হয়েছে সেগুলো চার বছর আগে ইরানের মাজান্দারান প্রদেশে বিধ্বস্ত হওয়া একটি বিমানের ধ্বংসাবশেষের ছবি। সামাজিক মাধ্যমে শেয়ারকৃত ছবিগুলোর উৎস অনুসন্ধান করতে গিয়ে আমরা বেশকিছু ফ্যাক্ট-চেকিং প্রতিবেদন খুঁজে পেয়েছি, যেগুলো বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছে। দি কুইন্ট, নিউজ মিটার, নিউজ মোবাইল, ডিসমিসল্যাব, প্রভৃতি ফ্যাক্ট-চেকিং সংস্থাগুলোর প্রতিবেদন এখানে উল্লেখযোগ্য।

ইরানিয়ান স্টুডেন্টস নিউজ এজেন্সি, মিজান নিউজ এজেন্সি, রোকনা প্রেস, জাহান নিউজ, প্রভৃতি সংবাদমাধ্যমগুলো থেকে আমাদের আলোচিত ছবিগুলোর অনুরূপ ছবি খুঁজে পাওয়া গেছে, যেগুলো প্রায় চার বছরের পুরানো একটি বিমান দুর্ঘটনার ছবি। তাছাড়া, রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি অব ইরানের এক্স হ্যান্ডেল থেকে চার বছর আগে শেয়ার করা একটি পোস্ট পাওয়া গেছে, যার সাথে আলোচিত ছবিগুলোর মিল আছে। ঐ ছবিগুলোতে বিধ্বস্ত হওয়া বিমানের লেজে ইরানের পতাকা ছাড়াও বিমানের একটি নাম্বার (1136) লক্ষ্য করা গেছে। অপরদিকে, প্রেসিডেন্ট রাইসিকে বহনকারী বাহনটি ছিল একটি হেলিকপ্টার এবং সেটির নাম্বার ছিল বেল ২১২ (Bell 212)। যদিও দুর্ঘটনায় কবলিত হেলিকপ্টারটির কোন ছবি আমরা এখনও হাতে পাইনি। তাছাড়া, বিমান এবং হেলিকপ্টারের লেজের গঠনও ভিন্ন হয়।

রাইসিকে বহনকারী হেলিকপ্টারের ধ্বংসাবশেষের ছবি বলে প্রচারিত ছবিগুলো দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে, এবং এখানে

এর আগে গত ১৯ মে ২০২৪ এ প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসিকে বহনকারী একটি হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হওয়ার পর ইরানের সরকারি সংবাদমাধ্যম ইসলামিক রিপাবলিক নিউজ এজেন্সি (আইআরএনএ) জানিয়েছে যে, ঐ হেলিকপ্টার আরোহী প্রেসিডেন্ট রাইসিসহ সবাই নিহত হয়েছে।

অতএব, উপরের আলোচনা থেকে বুঝা যাচ্ছে যে, ফেসবুকে রাইসিকে বহনকারী হেলিকপ্টারের ধ্বংসাবশেষের ছবি মনে করে যে ছবিগুলো শেয়ার করা হচ্ছে সেগুলো চার বছর আগের অন্য আরেকটি বিমান দুর্ঘটনার ছবি।

সুতরাং, সবকিছু বিবেচনা করে ফ্যাক্টওয়াচ সামাজিক মাধ্যমে শেয়ারকৃত ছবিগুলোর সাথে সংশ্লিষ্ট পোস্টকে বিভ্রান্তিকর বলে সাব্যস্ত করছে।

এই নিবন্ধটি ফেসবুকের ফ্যাক্ট-চেকিং প্রোগ্রামের নীতি মেনে লেখা হয়েছে।।
এর উপর ভিত্তি করে ফেসবুক যে ধরণের বিধিনিষেধ আরোপ করতে পারে, সে সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন এখানে
এছাড়া এই নিবন্ধ সম্পর্কে আপনার মূল্যায়ন, সম্পাদনা কিংবা আরোপিত বিধিনিষেধ তুলে নেয়ার জন্য আবেদন করতে এই লিঙ্কের সাহায্য নিন।

কোনো তথ্যের সত্যতা যাচাই করতে আমাদেরকেঃ
ইমেইল করুনঃ contact@factwatch.org
অথবা ফেইসবুকে মেসেজ দিনঃ facebook.com/fwatch.bangladesh