এটা কি রাহুল গান্ধীর সমর্থনে পাকিস্তানি পতাকা ওড়ানোর ভিডিও?

Published on: May 19, 2024

যা দাবি করা হচ্ছেঃ  এটা কেরালার ওয়েনার থেকে মনোনয়ন জমা দেয়ার সময় রাহুল গান্ধীর সমর্থনে আয়োজিত সমাবেশে পাকিস্তানের পতাকা ওড়ানোর ভিডিও।

অনুসন্ধানে যা পাওয়া যাচ্ছেঃ দাবিটি মিথ্যা। বাস্তবে ভিডিওটি কেরালার ওয়েনার শহরের নয় বরং,  কেরালারই অন্য একটি শহর কাসারগোডে ২০১৯ সালে ইন্ডিয়ান ইউনিয়ন মুসলিম লীগ (IUML) এর একটি রাজনৈতিক প্রচারণার সময়কার। ভিডিওতে দেখানো সবুজ পতাকাটি ইন্ডিয়ান ইউনিয়ন মুসলিম লীগের পতাকা, পাকিস্তানের জাতীয় পতাকা নয়।

ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া এমন কিছু পোষ্ট দেখুন এখানে, এখানে এবং এখানে

ফ্যাক্টওয়াচের অনুসন্ধানঃ 

রাহুল গান্ধী হচ্ছেন একজন ভারতীয় রাজনীতিবিদ যিনি ভারতীয় লোকসভায় চার-মেয়াদে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। ২০১৯ সাল থেকে তিনি কেরালার ওয়ানাড় লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ। ২০২৪ লোকসভা নির্বাচনেও তিনি এই আসন থেকেই মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া কিছু ভিডিওতে দাবি করা হচ্ছে যে, ওয়েনার থেকে মনোনয়ন জমা দেয়ার সময় রাহুল গান্ধীর সমর্থনে আয়োজিত সমাবেশে পাকিস্তানের পতাকা ওড়ানো হয়েছিল।

তাই এ ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়ার জন্য শুরুতেই ভিডিওতে দেখানো পতাকা বিশ্লেষণ করে দেখে ফ্যাক্ট ওয়াচ টিম। ভিডিওতে দেখানো পতাকার সাথে পাকিস্তানের জাতীয় পতাকার তুলনা করে দেখলে বেশ কিছু অমিল খুঁজে পাওয়া যাবে। দুই পতাকার ডিজাইন, চাঁদ এবং তারার অবস্থানের ভিন্নতা রয়েছে।

এখন প্রশ্ন হল, ভাইরাল ভিডিওতে দেখানো পতাকাটি কোথাকার? রিভার্স ইমেজ অনুসন্ধানে জানা যায়, এই পতাকাটি ইন্ডিয়ান ইউনিয়ন মুসলিম লীগ (Indian Union Muslim League) নামক একটি ভারতীয় রাজনৈতিক দলের। এই দলের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে ভাইরাল পতাকাটির অনুরূপ একটি পতাকার ছবি খুঁজে পাওয়া যায়।

উল্লেখ্য, ইন্ডিয়ান ইউনিয়ন মুসলিম লীগ হল কেরালা-ভিত্তিক একটি রাজনৈতিক দল। এটা ভারতের নির্বাচন কমিশন কর্তৃক কেরালায় একটি রাজ্য দল হিসেবে স্বীকৃত।

এই সূত্র ধরে ইউটিউবে প্রাসঙ্গিক কিছু কি-ওয়ার্ড ধরে অনুসন্ধান করে এন্টারটেইনমেন্ট ইন মালায়ালম (Entertainment In Malayalam) নামের একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে ১০ জুন ২০১৯-এ আপলোড করা ভাইরাল ভিডিওটির অনুরূপ একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়। ভিডিওর ক্যাপশনে লেখা ছিল “IUML 2019″।

পরবর্তিতে, ভাইরাল ভিডিওটি সত্যিই কেরালার ওয়েনার থেকে ধারণ করা হয়েছিল কি না এ ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়ার জন্য ভিডিওটি বিশ্লেষণ করে দেখা হয়। ভিডিওর ১২ সেকেন্ডের সময় আরামানা বাজার সিল্ক (Aramana Bazar Silks) নামের একটি দোকানের সাইনবোর্ড দেখা যায়। গুগল ম্যাপে এই সাইনবোর্ডের নাম ধরে অনুসন্ধান করলে জানা যায় যে, দোকানটি কেরালার কাসারাগোড় (Kasaragod) শহরে অবস্থিত। গুগল ম্যাপের সাহায্যে কাসারাগোড় শহরের আরামানা বাজার সিল্ক নামের দোকানের একটি স্যাটেলাইট ভিউ দেখা হয়, যার সাথে ভাইরাল ভিডিওতে থাকা সাইনবোর্ড এবং তার পাশে থাকা ভিভো মোবাইল কোম্পানির শোরুমের হুবহু মিল খুঁজে পাওয়া যায়।


অর্থাৎ, এর মাধ্যমে এতটুকু নিশ্চিত হওয়া যায় যে, ভাইরাল ভিডিওটি কেরালার কাসারাগোড় শহর থেকে ধারণ করা হয়েছিল। অন্যদিকে ভিডিওতে দেখানো পতাকাটি ইন্ডিয়ান ইউনিয়ন মুসলিম লীগের পতাকা, পাকিস্তানের জাতীয় পতাকা নয়।

তাই ফ্যাক্টওয়াচের বিবেচনায় ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া পোষ্টগুলো মিথ্যা।

এই নিবন্ধটি ফেসবুকের ফ্যাক্ট-চেকিং প্রোগ্রামের নীতি মেনে লেখা হয়েছে।।
এর উপর ভিত্তি করে ফেসবুক যে ধরণের বিধিনিষেধ আরোপ করতে পারে, সে সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন এখানে
এছাড়া এই নিবন্ধ সম্পর্কে আপনার মূল্যায়ন, সম্পাদনা কিংবা আরোপিত বিধিনিষেধ তুলে নেয়ার জন্য আবেদন করতে এই লিঙ্কের সাহায্য নিন।

কোনো তথ্যের সত্যতা যাচাই করতে আমাদেরকেঃ
ইমেইল করুনঃ contact@factwatch.org
অথবা ফেইসবুকে মেসেজ দিনঃ facebook.com/fwatch.bangladesh